রামগড়ে ১০ মামলার আসামী ও দুর্ধর্ষ ডাকাত আটক

Share this:

নিউজ ডেস্কঃ

খাগড়াছড়ির রামগড়ে চলতি মাসের ৪ঠা আগষ্ট পৌরসভার পূর্ব চৌধুরীপাড়া মফিজুর রহমানের বাড়ি, কালাডেবা সিরাজ কোম্পানির বাড়ি ও গত ১৫ আগষ্ট রাতে কমপাড়া চাউল ব্যবসায়ী ইউসুফের বাড়িতে ডাকাতির ঘটনায় কয়েক ধাপে ৬জন আন্ত:জেলা ডাকাত দলের সদস্যদের আটকের পর গতকাল ১৭ আগষ্ট রাতে চট্টগ্রামের পাহাড়তলী থেকে দুর্ধর্ষ ডাকাত দলের অন্যতম সদস্য ও বিভিন্ন থানায় চুরী, ডাকাতি, ছিনতাই ও মাদকের ১০ মামলার সাজাপ্রাপ্ত আসামী নুরুল আলম প্রকাশ আমিন প্রকাশ আলম ড্রাইভার (৩৬)কে আটক করেছে রামগড় থানা পুলিশ।

সে রামগড়ের তৈছালাপাড়া আবুল কাশেমের ছেলে। তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন এলাকায় ৭টি বিয়ে করার অভিযোগ পাওয়া গেছে এবং একেক সময় একেক স্ত্রীর নিকট বসবাস করে।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, সাম্প্রতিক সবকটি ডাকাতির ঘটনায় আমিন জড়িত। পূর্ব চৌধুরী পাড়ায় ডাকাতির সময় বাধাঁ দেয়ার গৃহকর্তাসহ ৩ জনকে কোপানোর কথা প্রাথমিক ভাবে স্বীকারক্তি দিয়েছে আমিন। তাকে গতকাল চট্টগ্রামের পাহাড়তলী উত্তর কাট্টলি এলাকা থেকে পাহাড়তলী পুলিশের সহযোগীতায় আটক করা হয়। এসময় তার কাছ থেকে লুণ্ঠিত ৩৩ হাজার টাকা মূল্যের স্বর্ণালংকার উদ্ধার করা হয়। এদিকে ঘটনার পরপর আটককৃত ৪ ডাকাতের মধ্যে নুরুল ইসলাম ও নজরুল ইসলামের বিরুদ্ধে ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করেছে পুলিশ।

পুলিশ আরো জানায়, আটককৃত ডাকাতদের মধ্যে নুজরুল ইসলাম ও নুরুল আলম বিভিন্ন মামলার ওয়ারেন্টভূক্ত পলাতক আসামি। এ পর্যন্ত আটক ৭ আসামির প্রত্যেকের বিরুদ্ধে একাদিক মামলা রয়েছে এবং সদ্য আটককৃত ব্যক্তির বিরুদ্ধেও রিমান্ডের আবেদন করা হবে।

রামগড় থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তারেক মোহাম্মদ আবদুল হান্নান জনান, ডাকাত সিন্ডিকেটটি সনাক্ত করে ডাকাতির মালামালসহ ঘটনার মূলহোতাদের আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় সম্পৃক্ত বাকী ডাকাতকে দ্রুত আটক করা হবে।

Share this:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *