আসামের এনআরসি (নাগরিক পঞ্জি) প্রধানকে বদলির নির্দেশ ভারতীয় সুপ্রিম কোর্টের

নিউজ ডেস্ক

ভারতের আসামের জাতীয় নাগরিক তালিকা বা এনআরসি প্রধান প্রতীক হাজেলাকে দেশটির মধ্য প্রদেশে বদলির নির্দেশ দিয়েছে ভারতীয় সুপ্রীম কোর্ট। তবে ভারতীয় সংবাদ মাধ্যমগুলো এই বদলির কারণ সম্পর্কে এখনো কিছুই জানাতে পারে নি। ১৮ অক্টোবর শুক্রবার সুপ্রীম কোর্টের এক রায়ে ভারতের প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ অবিলম্বে প্রতীক হাজেলাকে বদলি করতে সরকারকে নির্দেশ দিয়েছেন। নির্দেশে বলা হয়েছে, আপাতত প্রতীক হাজেলা সর্বোচ্চ মেয়াদে ডেপুটেশনে থাকবেন।

জানা যায়, সুপ্রীম কোর্টের পক্ষ হতে এমন নির্দেশনা জারির পর সরকারি আইনজীবী অ্যাটর্নি জেনারেল কেকে ভেনোগোপাল বিচারপতির কাছে জানতে চেয়েছিলেন, “এর কোনো কারণ আছে কিনা। জবাবে প্রধান বিচারপতি জানান, কোনো কারণ ছাড়া নির্দেশ দেয়া হয় না।”

রায়ের পরপরই গনমাধ্যকে হাজেলার ঘনিষ্ঠরা জানিয়েছেন, আন্তঃক্যাডার ডেপুটেশনে যেতে চেয়েছেন তিনি এবং সুপ্রিম কোর্ট অনুমতি দিয়েছে। তবে হাজেলা বলেন, “আমাকে আদালত নিয়োগ দিয়েছেন। যা বলার আমি আদালতেই বলব। এখন আদালত আমাকে মধ্য প্রদেশে ডেপুটেশনে যাওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন।”

প্রসঙ্গত, মধ্য প্রদেশে জন্ম গ্রহন করা হাজেলা আসাম-মেঘালয় ক্যাডারের ১৯৯৫ ব্যাচের আইএএস কর্মকর্তা তিনি। আসামের এনআরসি সংশোধন করার জন্যে খসড়া তালিকা তদারকি করার দায়িত্ব তাকে দেয়া হয়েছিল। তিনি এনআরসি চূড়ান্ত করতে ৫০ হাজার কর্মকর্তার একটি দলের নেতৃত্ব দেন। চূড়ান্ত তালিকা নিয়ে আসাম ও ভারতজুড়ে বেশ সমালোচনা ও অভিযোগ ওঠে। এনআরসিতে স্থান পাওয়ার জন্য আবেদন করেছিলেন ৩ কোটি ৩০ লাখ ২৭ হাজার ৬৬১ জন। এদের মধ্যে তালিকায় স্থান পেয়েছেন ৩ কোটি ১১ লাখ ২১ হাজার ৪জন। বাদ পড়েছেন ১৯ লাখ ৬ হাজার ৬৫৭ জনের নাম।

Share this:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *